Wednesday, January 29, 2020

তাপসে মুগ্ধ ব্যারিস্টার রফিক উল হক

ব্যারিস্টার রফিক উল হক বাংলাদেশের প্রবীণতম একজন আইনজীবী। বর্তমানে তিনি অসুস্থ। আইনজীবীর পাশাপাশি তিনি একজন সমাজসেবকও বটে। নিরবে নিভৃতে বাংলাদেশের স্বাস্থ্য সেবার উন্নয়নে তিনি নানা রকম কাজ করেছেন। বাংলাদেশে হাতে গোনা যে দুই একজন মানুষ আছেন যারা জাতির অভিভাবক হিসেবে বিবেচিত হন তাদের মধ্যে ব্যরিস্টার রফিক উল হক একজন। ওয়ান ইলেভেনের সময় দুই নেত্রীর মামলা লড়ার সৌভাগ্যও তার হয়েছিল।

ব্যারিস্টার রফিক উল হক বাংলাদেশের প্রবীণতম একজন আইনজীবী। বর্তমানে তিনি অসুস্থ। আইনজীবীর পাশাপাশি তিনি একজন সমাজসেবকও বটে। নিরবে নিভৃতে বাংলাদেশের স্বাস্থ্য সেবার উন্নয়নে তিনি নানা রকম কাজ করেছেন। বাংলাদেশে হাতে গোনা যে দুই একজন মানুষ আছেন যারা জাতির অভিভাবক হিসেবে বিবেচিত হন তাদের মধ্যে ব্যরিস্টার রফিক উল হক একজন। ওয়ান ইলেভেনের সময় দুই নেত্রীর মামলা লড়ার সৌভাগ্যও তার হয়েছিল।
সে সময় ব্যারিস্টার রফিক উল হক বলেছিলেন, বাংলাদেশের রাজনীতিতে এক উজ্জল তারকা হবেন ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপস। এরপর ২০০৮ সালের নির্বাচনে তাপস নির্বাচন করবে কি করবে না সেই সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য বিভিন্ন মানুষের পরামর্শ নিয়েছিলেন তাদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন ব্যারিস্টার রফিকউল হক।

পিতা-মাতাহীন ফজলে নূর তাপস সব সময় অভিভাবক হিসেবে বিবেচনা করেন ব্যারিস্টার রফিক উল হককে। রফিক উল হকের আশীর্বাদ সব সময় ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপসের সঙ্গে থাকে। সিটি নির্বাচনের আগেও এই অতশী প্রবীণ মানুষটির কাছে গিয়েছিলেন তাপস। সে সময় ব্যারিস্টার রফিক উল হক তাপসকে শুভ কামনা জানান। আর ব্যারিস্টার রফিক উল হক মনে করেন ঢাকাকে কেউ যদি বদলে দিতে পারেন সেটা তাপসই পারবেন। এছাড়া রাজনৈতিক নেতা হিসেবেও দীর্ঘদিন উজ্জল তারকা হিসেবে থাকবেন তিনি।

ব্যারিস্টার রফিক উল হকের সমর্থন তাপসের জন্য একটা বড় প্রাপ্তি। কারণ শুধু বাংলাদেশের আইনজীবীদের মধ্যেই নয় দেশের মানুষের মধ্যেও ব্যারিস্টার রফিক উল হক একটি সম্মানীয় স্থানে আছেন। এছাড়া তিনি সকলের শ্রদ্ধার পাত্র।সূত্র  bangala insider


0 comments: