Monday, January 27, 2020

নারীর ক্ষমতায়নে আমেরিকার চেয়ে এগিয়ে বাংলাদেশ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান বলেছেন, বিশ্বব্যাংক থেকে প্রকাশিত উইমেন এম্পাওয়ারমেন্ট (নারীর ক্ষমতায়ন) ইনডেক্সে সাউথ এশিয়ায় আমরা বাংলাদেশ হলো নম্বর ওয়ান। পাকিস্তান, ইন্ডিয়া সবার আগে আমরা রয়েছি। এই ইনডেক্সে আমরা হলাম ৪৮ নম্বরে, আর আমেরিকা হলো ৫২ নম্বরে। আমরা কিন্তু এ ইনডেক্সে আমেরিকার চেয়ে বেটার। আমরা সব সেক্টরে যে এগিয়ে যাচ্ছি সেটাই বলতে চাচ্ছি। গতকাল শনিবার সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি মিলনায়তনে বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থার ১৫তম জাতীয় সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন সংস্থার সভাপতি আইনজীবী সিগমা হুদা। অনুষ্ঠানে সংস্থাটির প্রধান কার্যালয়ের ভবন নির্মাণের জন্য প্রধানমন্ত্রী বরাবর লেখা একটি চিঠি সালমান এফ রহমানের হাতে তুলে দেন ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা। এর আগে তিনি সম্মেলনে চিঠিটি পড়ে শোনান।
সালমান এফ রহমান বলেন, বাংলাদেশ স্বাধীনই হয়েছে হিউম্যান রাইটসের জন্য। যেহেতু আমাদের হিউম্যান রাইটসটা ভায়োলেট ছিল, আমাদের অধিকার নেওয়ার জন্য, আদায় করার জন্য এ দেশটা বঙ্গবন্ধু স্বাধীন করেছেন। এখন প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশ কোথায় এগিয়ে গেছে, এগুলো সবাই জানেন। কিছুদিন আগে এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক বললো, এশিয়া প্যাসিফিক রিজিয়নে বাংলাদেশের সব থেকে হায়েস্ট গ্রোথ হয়েছে। আট পার্সেন্টের ওপরে। স¤প্রতি এইচএসবিসি ব্যাংক ৭৫ দেশের মডেলিং করেছে। তারা দেখিয়েছে ২০৩৫ সাল পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি গ্রোথ রেট হবে বাংলাদেশের

সালমান এফ রহমান বলেন, প্রধানমন্ত্রী মাদক, জঙ্গিবাদ ও দুর্নীতির বিষয়ে জিরো টলারেন্স দেখিয়েছেন। যারা জঙ্গি যারা মাদকের সঙ্গে আছে, যারা সন্ত্রাসী এদের স্টপ করতে হবে। আপনারা (মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থা) সমাজের সঙ্গে কাজ করছেন। আপনাদের সবাইকে অনুরোধ করবো-মাদক, জঙ্গিবাদ ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে আপনারা প্রচার করবেন। বিশ্বব্যাপী মানবাধিকারের কথা বললে প্রধানমন্ত্রীর থেকে বড় মানববন্ধু হতে পারে না। রোহিঙ্গদের আমরা যে শেল্টারটা দিয়েছি। তুরস্ক, ইতালি, স্পেন কীভাবে রিফিউজিদের তাদের সীমনায় ঢুকতে দেয় না। আমেরিকাও কী ব্যবহার করেছে সবাই দেখছেন। ১০ থেকে ২০ হাজার রিফিউজি নিয়ে তাদের এতো মাথা ব্যথা। আর আমরাতো এখানে ১০ লাখ রিফিউজি এনেছি। যার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে মাদার অব হিউম্যানিটি টাইটেল দেওয়া হয়েছে।
অপরদিকে, সালমান এফ রহমান গত শুক্রবার রাত ঢাকার নবাবগঞ্জে শোল্লা হাই স্কুল অ্যান্ড কলেজে আয়োজিত ৭৫ বছর পূর্তিতে হীরক জয়ন্তী উদযাপন অনুষ্ঠানে বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশকে স্বাধীন করেছেন বলেই আমরা বিশ্ব দরবারে প্রশংসিত হয়েছি। তার জন্যই এদেশ বিশ্ব দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে। তার তনয়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন সারা বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে। 
ঢাকা ১ আসনের এই সংসদ সদস্য আরো বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা ও তার সুযোগ্য পুত্র ওয়াজেদ জয় মিলে দেশটাকে যখন ডিজিটাল করবে বলে ঘোষণা দেন তখন এদেশের মানুষ হেসেছিল। ইতোমধ্যে প্রধানমন্ত্রী ঘরে ঘরে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট চালু করে দিয়েছে। দেশে এখন ডিজিটালের সুবাতাস বইছে। 
তিনি আরো বলেন, নির্বাচনের আগের প্রতিশ্রুতি সম্পর্কে তিনি বলেন আমি যে সব প্রতিশ্রুতি দিয়েছি তা ইতিমধ্যে কাজ শুরু হয়ে গেছে। বাকী কাজগুলোও খুব শীঘ্রই শুরু হবে। এর আগে তিনি কলেজের ৪র্থ তলা একাডেমিক ভবনের উদ্বোধন করেন।
হীরক জয়ন্তী উদযাপন কমিটির আহবায়ক ও জেলা দায়রা জজ কে এম রাশেদুজ্জামান রাজার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমানসহ উপজেলা আ.লীগের নেতৃবৃন্দ। শেষে সাংস্কৃতিক উৎসবে শুভ্রদেব ও চ্যানেল আই সেরা কন্ঠশিল্পী কোনালের গানে গানে দর্শক শ্রোতাদের মাতিয়ে তুলেন।


0 comments: