Saturday, February 22, 2020

দামুড়হুদার জয়রামপুর থেকে শিশু সন্তানসহ মা দু-দিন ধরে নিখোঁজ


 দামুড়হুদার জয়রামপুর স্টেশনপাড়া থেকে শিশু সন্তানসহ মা দুদিন ধরে নিখোঁজ রয়েছে। গত বৃহস্পতিবার দুপুর ২ টার দিকে ৩ বছল বয়সী শিশু সন্তান শিমুলসহ ডালিয়া খাতুন ডলি (২৫) নামের ওই গৃহবধু স্বামীর বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয়। এ ঘটনায় নিখোঁজ গৃহবধুর স্বামী আ. রহিম দামুড়হুদা থানায় জিডি করেছেন। 

ঘটনার বিবরণে জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার হাউলী ইউনিয়নের ডুগডুগি গ্রামের আশাদুল হকের মেয়ে ডালিয়া খাতুন ওরফে ডলির সাথে ৭ বছর আগে জয়রামপুর স্টেশনপাড়ার আব্দুর রহিমের পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। স্বামী আব্দুর রহিম পেশায় একজন ঝুরিভাজা বিক্রেতা। তিনি ট্রেনের ভেতর ঝুরিভাজা বিক্রি করে জিবিকা নির্বাহ করেন। দুপুরে ঝুরিভাজা বিক্রি করতে বাড়ি থেকে বের হন এবং সন্ধ্যার পর ফিরে আসেন। তাদের সংসারে অন্তরা (৫) ও শিমুল (৩) নামের দুটি সন্তান রয়েছে। অন্যান্য দিনের ন্যায় রহিম গত বৃহস্পতিবার দুপুর ১ টার দিকে ট্রেনের ভেতর ঝুরিভাজা বিক্রি করতে বাড়ি তেকে বের হয়ে যান। রাতে বাড়ি পিরে দেখেন শিশু সন্তান শিমুল ও স্ত্রী ডলি বাড়িতে নেই। বেশ কিছুক্ষন অপক্ষোর পরও স্ত্রী সন্তান বাড়ি না ফেরায় খোঁজাখুজি শুরু করেন। প্রতিবেশীসহ নিকট আত্মিয়-স্বজনদের বাড়িতেও খোঁজ করেন। কিন্ত কোথাও তাদের খোজ মেলেনি। স্ত্রী-স্তানকে কোথাও খুজে না পেয়ে স্বামী আব্দুর রহিম শেষমেষ গতকাল শুক্রবার দামুড়হুদা মডেল থানায় সাধারণ ডাইরি করেন।

এ দিকে নিখোঁজ ডলির পিতা আশাদুল হক বলেছেন, জামাই আ. রহিম মেয়ে ডলিকে প্রায়ই মারধর করতো। তাদের মধ্যে ঝই-ঝগড়া লেগেই থাকতো। সআমী-স্ত্রীর মধ্যে বনিবনা ছিলোনা। রাগ করে মেয়ে কোথাও চলে গেলো না কী তাদের গুম করে দেয়া হলো কিছুই বঝুতে পারছিনা। # #

0 comments: