Thursday, February 20, 2020

সোমবারের মধ্যে হাজার কোটি টাকা দিতেই হচ্ছে গ্রামীণফোনকে

আগামী সোমবারের মধ‌্যে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনেকে (বিটিআরসি) পাওনা বাবদ এক হাজার কোটি টাকা দিতে গ্রামীণফোন কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন আপিল বিভাগ। বৃহস্পতিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন বৃহত্তর আপিল বেঞ্চ এ আদেশ দেন।
আদেশে বলা হয়েছে, গ্রামীণফোনের কাছে বিটিআরসির যে পাওনা টাকা সেটা কমানেরা কোনো সুযোগ নাই। সেক্ষেত্রে তাদের আগামী সোমবারের মধ্যে অন্তত এক হাজার কোটি টাকা দিতে হবে। বাকি টাকার বিষয়ে ওইদিন পরবর্তী আদেশ দেওয়া হবে।
এদিন গ্রামীণফোনের আইনজীবী আদালতের কাছে ৬ মাস সময় চান। বলেন, গ্রামীণফোন কর্তৃপক্ষ ৫৭৫ কোটি টাকা দিতে চায়। আদালত সেই আবেদন গ্রাহ্য না করে সরাসরি বলেন, আগে এক কোটি টাকা দিতে হবে বিটিআরসিকে। এসময় আদালত বলেন, শুধু টাকা কমালে হবে না। টাকা দিতেও হবে।
আদালতে বিটিআরসির পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মাহবুবে আলম ও খন্দকার রেজা-ই-রাকিব। গ্রামীণফোনের পক্ষে শুনানি করেন এ এম আমিন উদ্দিন ও মোহাম্মদ মেহেদী হাসান চৌধুরী।
আপিল বিভাগ গত ২৪ নভেম্বর গ্রামীণ ফোনকে দুই হাজার কোটি টাকা পরিশেধ করতে নির্দেশ দিয়েছিল। সেজন্য তাদের দেওয়া হয়েছিল তিন মাস সময়, যা ২৪ ফেব্রুয়ারি শেষ হচ্ছে।
ওই সময় শেষ হওয়ার আগে বিটিআরসিকে ১০০ কোটি টাকা দিয়ে আলোচনা চালু রাখার প্রস্তাব দিয়েছিল গ্রামীণফোন। কিন্তু নিয়ন্ত্রক সংস্থা তাতে রাজি হয়নি বলে বুধবার জানান গ্রামীণফোনের হেড অব রেগুলেটরি অ্যাফেয়ার্স হোসেন সাদাত।
সে বিষয়টি তুলে ধরে বৃহস্পতিবার আপিল বিভাগে রিভিউ শুনানিতে ছয় মাসের কিস্তিতে ওই দুই হাজার কোটি টাকা পরিশোধের অনুমতি চাওয়া হয়। কিন্তু শুনানি শেষে আদালত সোমবারের মধ্যে এক হাজার টাকা পরিশোধের নির্দেশ দিয়ে বিষয়টি সেদিনই পরবর্তী আদেশের জন্য রাখেন

0 comments: