Saturday, March 7, 2020

দামুড়হুদায় ডগ স্কোয়ার্ডের সাহায্যে বিজিবির মাদক বিরোধী অভিযান ফেনসিডিলসহ আটক-১ : দুই জনের নামে মামলা

দামুড়হুদা ব্যুরো : চুয়াডাঙ্গা-৬ বিজিবি ব্যাটালিয়ন ডগ স্কোয়ার্ডের সাহায্যে মাদক ও চোরাচালান বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে ১৩৫ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছে। আটক করা হয়েছে বকুল নামের এক মাদক ব্যবসায়ীকে। আটক মাদক ব্যবসায়ী বকুল হোসেন (৪০) চুয়াডাঙ্গা জেলা শহরের কেদারগঞ্জ পাড়ার মৃত মুনছুর আলীর ছেলে। উদ্ধার ফেনসিডিলগুলো জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরে জমা করা হয়েছে। এ ঘটনায় দর্শনা আইসিপির টহল কমান্ডার হাবিলদার রোকনুজ্জামান বাদী হয়ে আটক মাদক ব্যবসায়ী বকুলসহ দর্শনা জয়নগর গ্রামের ইলিয়াস হোসেনের ছেলে সাব্বিরকে (১৮) পলাতক আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন। চুয়াডাঙ্গা-৬ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অতিরিক্ত পরিচালক ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক নিস্তার আহমেদ গতকাল শনিবার রাত ১০ টার দিকে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 
প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চুয়াডাঙ্গা-৬ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনস্থ দর্শনা আইসিপির টহল কমান্ডার হাবিলদার রোকনুজ্জামান সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে চুয়াডাঙ্গা জেলার দর্শনা থানার অন্তর্গত জয়নগর মধ্যপাড়ায় ডগ স্কোয়ার্ড নিয়ে মাদক ও চোরাচালান বিরোধী অভিযান চালিয়ে মাদক ব্যবসায়ী বকুলকে আটক করা হয় এবং  তার দেহতল্লাশি করে ৫ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়। এ সময় বিজিবির উপস্থিতি টের পেয়ে সাব্বির নামের এক মাদক ব্যবসায়ী পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় ফেনসিডিলসহ আটক মাদক ব্যবসায়ী বকুলসহ দর্শনা জয়নগরের সাব্বিরকে পলাতক আসামি করে  বিজিবির পক্ষ থেকে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ছাড়া শুক্রবার রাত ১১ টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চুয়াডাঙ্গা-৬ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনস্থ ফুলবাড়ি বিওপির টহল কমান্ডার হাবিলদার রফিকুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে দর্শনা থানার অন্তর্গত সীমান্তবর্তী ফুলবাড়ি গ্রামের মাঠে মাদক ও চোরাচালান বিরোধী অভিযান চালিয়ে পরিত্যক্ত অবস্থায় ১৩০ বোতল ফেনসিডিল আটক করতে সক্ষম হয়। তবে এ ঘটনায় কেউ আটক হয়নি। উদ্ধার হওয়া ফেনসিডিলগুলো জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরে জমা করা হয়েছে বলে বিজিবির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। #. 

0 comments: