Monday, April 27, 2020

দামুড়হুদা উপজেলায় বিভিন্ন বাজারে ভ্রাম্যমান অভিযানে ১৮ হাজার টাকা জরিমানা

দামুড়হুদা উপজেলার বিভিন্ন সবজি বাজারে ভ্রাম্যমান অভিযান চালিয়ে ১৮হাজার টাকা জরিমান করেন।ভ্রাম্যমান অভিযান পরিচালনা করেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ এর সহকারি পরিচালক সজল আহাম্মেদ ও দামুড়হুদা উপজেলা সহকারি  কমিশনার (ভুমি) মো: মহিউদ্দিন।সোমবার বিভিন্ন সময় এই ভ্রাম্যমান অভিযান পরিচালনা করেন।
পবিত্র রমজান উপলক্ষে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম সহনীয় পর্যায়ে রাখতে দর্শনা সবজিবাজার, রেলবাজার, পুরাতন বাজার এবং মুদিখানার দোকানে অভিযান পরিচালনা করেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, চুয়াডাঙ্গা।অভিযানে কাচাবাজারে সবজি, আদা, বেগুন, পিয়াজ-রসুন ইত্যাদির মুল্য যাচাই করা হয়।এসময় মুল্যতালিকা প্রদর্শন না করা ও পণ্যের ক্রয় রশিদ সংরক্ষণ না রাখায় ৪ জন সবজি বিক্রেতাকে সতর্কতামূলক ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন-২০০৯ এর ৩৮ধারায় ২হাজার টাকা জরিমানা করা হয় এবং প্রত্যেক ব্যবসায়ীকে বাধ্যতামূলকভাবে প্রতিটি পণ্যের ক্রয় রশিদ সংরক্ষণ ও মুল্যতালিকা প্রদর্শন করতে বলা হয়। পরবর্তীতে রেলবাজারে মেসার্স সাগর গ্যাস হাউসে অভিযান চালিয়ে  তাদের ৪০টি গ্যাস সিলিন্ডারের লাইসেন্স এর বিপরীতে মজুদ রয়েছে প্রায় ২০০ সিলিন্ডার। গ্যাসের অবৈধ মজুদ ও মুল্যতালিকা প্রদর্শন না করার অপরাধে প্রতিষ্ঠানের মালিককে ২০০৯ এর ৩৮ ধারায় ৮ হাজার  টাকা জরিমানা করা হয়।এবং পুরাতন বাজারে মেসার্স মমিন ফল ভান্ডার ও মেসার্স সিরাজ ফল ভান্ডারকে পুর্বে সতর্ক করার পরও ফলের মুল্যতালিকা প্রদর্শন না করা ও পন্যের মোড়কীকরণ বিধি বহির্ভূত পন্য বিক্রয় করার অপরাধে উভয়কেই  ২০০৯ সালের ৩৭/৩৮ ধারায় ৩হাজার টাকা করে জরিমানা করেন।
একই দিনে দামুড়হুদা বাজারে দুই ব্যবসায়ী মুল্যতালিকা প্রদর্শন না করা ও পণ্যের ক্রয় রশিদ সংরক্ষণ না করায় অপরাধে দন্ডবিধি ১৮৬০ সালের ১৮৮ ধারায় প্রত্যেককে ১হাজার করে ২হাজার টাকা জরিমানা করেন।দামুড়হুদা উপজেলায় ভ্রাম্যমান অভিযান পরিচালনা করে মোট ১৮হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।
অভিযান পরিচালনা করেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ এর সহকারী পরিচালক সজল আহম্মেদ ও দামুড়হুদা উপজেলা সহকারি  কমিশনার (ভুমি) মো: মহিউদ্দিন।এসময়  সহযোগিতা করেন চুয়াডাঙ্গা পুলিশ লাইনের একটি টিম ও দামুড়হুদা মডেল থানার পুলিশ।

0 comments: