Friday, May 15, 2020

চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান

নিরাপত্তার বিশেষ নিয়ম মেনে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় শেষ হলো জাতীয় অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামানের দাফন। শুক্রবার সকালে আজিমপুর কবরস্থানে তাকে সমাহিত করা হয়। তার করোনা পরীক্ষার ফলাফল পজিটিভ আসায় অন্য সব আনুষ্ঠানিকতা বাতিল করা হয়েছে।
শুক্রবার সকালে একটি বিশেষ টিম ড. আনিসুজ্জামানের দাফনের প্রক্রিয়া শুরু করে। সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে বিশেষ নিরাপত্তায় তার দাফনের প্রক্রিয়া শুরু হয়। পরে দাফনের জন্য মরদেহ নেওয়া হয় রাজধানীর আজিমপুর গোরস্থানে। সেখানে নামাজে জানাজা শেষে তাকে দাফন করা হয়।
এর আগে, গত ২৭ এপ্রিল হৃদরোগ সমস্যার পাশাপাশি কিডনি ও ফুসফুসে জটিলতা, পারকিনসন্স, প্রোস্টেট ও রক্তে সংক্রমণের সমস্যা নিয়ে অধ্যাপক আনিসুজ্জামানকে রাজধানীর ইউনিভার্সেল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তারপর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয় তাকে। এরপর বৃহস্পতিবার বিকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান অধ্যাপক আনিসুজ্জামান। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৩ বছর।
ভাষা আন্দোলন, মহান মুক্তিযুদ্ধ, স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনসহ দেশের সব ক্রান্তি লগ্নে অসামান্য অবদান রাখা এই শিক্ষাবিদের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী- রাষ্ট্রপতিসহ সকল মহলের মানুষ।

0 comments: