Thursday, May 7, 2020

ঝিনাইদহে শ্রমিক সংকটে ধান কাটল ছাত্র লীগ

ঝিনাইদহে চলতি মৌসুমে আগাম জাতের বোরো ধান কাটা শুরু হয়েছে। করোনাভাইরাসের কারণে শ্রমিক সংকটে পড়েছেন চাষিরা। সময় মতো ধান কাটা নিয়ে যখন তারা চিন্তিত, ঠিক সেই সময়ে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্দেশে কৃষকের পাশে দাঁড়িয়েছেন ঝিনাইদহ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। তারা ধান কেটে কৃষকের ঘরে পৌঁছে দিচ্ছেন।
বৃহস্পতিবার (৭ মে) সকাল ৯ টার দিকে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার ছোট কামারকুন্ডু এলাকার চাষির ৩০ কাঠা জমির বোরো ধান কেটে দেওয়া হয়।

 ঝিনাইদহ জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ও ঝিনাইদহ সরকারি কে.সি কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আবু সুমন বিশ্বাসের নেতৃত্বে ২৬ জন নেতাকর্মী কৃষকের ক্ষেতের ধান কাটায় অংশ নেন। ধান কেটে আঁটি বেঁধে দেন তারা।
কৃষক বলেন, ‘আগাম ২৯ জাতের বোরো ধান করায় ৪-৫ দিন হলো ধান পাকতে শুরু করেছে। কয়েক দিন ধরে গ্রামের শ্রমিকদের ধান কাটার জন্য অনুরোধ করে আসছি। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে ধান কাটতে রাজি হননি তারা। ধান নিয়ে খুব চিন্তায় পড়ে যাই। বুধবার সকালে ছাত্রলীগ নেতা সুমন ফোন দিয়ে আমার ক্ষেতের ধান কেটে দেবেন বলে জানান। পরে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ধান কেটে আঁটি বেধে দিয়েছেন।’
ছাত্রলীগ নেতা আবু সুমন বিশ্বাস বলেন, ‘কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্দেশে ও আমাদের এমপি তাহজীব আলম সিদ্দিকী সমি ভাইয়ের সার্বিক সহযোগিতায় কৃষকের বোরো ধান কেটে দেওয়ার কার্যক্রম হাতে নিয়েছি। করোনাভাইরাসের এই সময়ে শ্রমিক সংকটের কারণে কৃষকরা তাদের ক্ষেতের ধান কাটতে পারছেন না। মানবিক কারণেই আমরা দরিদ্র কৃষকের পাশে দাঁড়িয়েছি এবং তাদের ধান কেটে দিচ্ছি। এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে ইনশাআল্লাহ।’

0 comments: