Sunday, May 17, 2020

দামুড়হুদার জয়রামপুর থেকে চুরি হওয়া ইজিবাইক কুষ্টিয়া ভেড়ামারা থেকে উদ্ধার : আটক-৫

দামুড়হুদার জয়রামপুর স্টেশন এলাকা থেকে চুরি হওয়া ইজিবাইকটি কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। আটক করা হয়েছে ইজিবাইক চুরির সাথে জড়িত আন্ত:জেলা চোরচক্রের ৫ সদস্যকে। রোববার দামুড়হুদা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল খালেকের নেতৃত্বে এসআই কামরুল হাসান ও এএসআই লিয়াকত আলী সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অভিযান চালিয়ে আসামিদের আটক পূর্বক কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা এলাকা থেকে ইজিবাইটটি উদ্ধার করেন। আটককৃত হলো-চুয়াডাঙ্গা সদরের হাজরাহাটি গ্রামের আশাদুল হকের ছেলে সুমন (২০), একই গ্রামের হাফিজুর রহমানের ছেলে রাফি (১৮), কুষ্টিয়া ভেড়ামারা উপজেলার আড়কান্দি গ্রামের তৌহিদুল ইসলামের ছেলে শাকিল (২৫), একই এলাকার হাফিজুর রহমানের ছেলে মামুন (২৫) এবং মৃত কবেদ আলীর ছেলে আনারুল (৪০)। 
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা দামুড়হুদা মডেল থানার এসআই কামরুল হাসান জানান, গত ১১ মে বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে চুয়াডাঙ্গা জেলা সদরের হাজরাহাটি গ্রামের ইজিবাইক চালক সাব্বির আহমেদ তার নিজ ইজিবাইকে দামুড়হুদা উপজেলার জয়রামুপর স্টেশন এলাকায় যাত্রি নিয়ে আসেন। জয়রামপুর স্টেশনে যাত্রি নামিয়ে জয়রামপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অদুরে ইজিবাইক রেখে প্রসাব করতে যায় চালক সাব্বির। প্রসাব ফিরে পানি খেতে যায়। টিউবওয়ল থেকে পানি খেয়ে ফিরে এসে দেখে ইজিবাইবটি নেই। অনেক খোঁজাখুজি করার পর ইজিবাইকটি না পেয়ে সন্ধ্যার পর দামুড়হুদা থানায় আসেন সাব্বির ও তার মা ময়না খাতুন। মা ময়না খাতুন থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। পরে পুলিশ সাব্বিরের বন্ধু  চুয়াডাঙ্গা সদরের হাজরাহাটি গ্রামের আশাদুল হকের ছেলে সুমনকে আটক করেন। তাকে জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে সে ইজিবাইক চুরির কথা স্বিকার করে। তার দেয়া স্বিকারোক্তি মোতাবেক অভিযান চালিয়ে ইজিবাইক চুরির সাথে জড়িতদের আটক করা হয়। পরে কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা এলাকা থেকে ইজিবাইকটি উদ্ধার করা হয়। আটককৃতদের আজ সোমবার আদালতে সোপর্দ করা হবে। তাদের রিমান্ডের আবেদন জানানো হবে বলে জানান মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই কামরুল হাসান। দামুড়হুদা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল খালেক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

0 comments: